হাথুরুসিংহেকে মিস করবেন মাহমুদুল্লাহ

by  ডেস্ক রিপোর্টার | | Tuesday 21st November 2017 |11:43 AM

হাথুরুসিংহেকে মিস করবেন মাহমুদুল্লাহ

 হাথুরুসিংহেকে মিস করবেন মাহমুদুল্লাহ

নতুন কোচ নিয়ে ডামাডোল বিসিবি পাড়ায়। কে হচ্ছেন সাকিব-মাশরাফীদের গুরু? ইংল্যান্ডের সাবেক কোচ অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারকে নিয়ে খবরও ছেপেছে দেশের কিছু অন-লাইন পোর্টাল। হাথরুর বিদায়ে প্রশ্ন উঠেছিল, কেন এমন অপেশাদার আচরণ করলেন চন্ডিকা? সিনিয়র ক্রিকেটারদের সাথে দ্বন্দ্ব, এমন খবর চাউর ছিল বহুদিন। তবে, একবাক্যে একে রটনা বলেই উড়িয়ে দিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

এ দেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে সফল বিদেশি কোচ এখন দলের সঙ্গে আছেন নাকি নেই তা স্পষ্ট নয়। প্রবল গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে শেষ পর্যন্ত তিনি দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের। নিজ দেশের দায়িত্ব নিয়ে টাইগারদের বিপক্ষে দেখা যেতে পারে তাকে জানুয়ারিতেই। সদ্য সমাপ্ত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে হঠাৎ করেই পদত্যাগপত্র জমা দেন বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে ।

 মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহীম, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে দ্বন্দ্বের কারণেই পদত্যাগ করেছেন কোচ। সত্যি কি তাই? এর সঠিক উত্তর নেই কারো মুখে। দায়িত্ব নেয়ার শুরুতে সাকিবের সঙ্গে ঝামেলা দিয়ে শুরু। এরপর সিনিয়র সব ক্রিকেটারদের সঙ্গে তার সম্পর্কের অবনতি হয়েছে বলে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। তবে সবই অস্বীকার করেছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। গতকাল  গুলশানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকারের সাহায্য সংস্থা ইউএসএইডের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে চুক্তি সইয়ের পর সংবাদমাধ্যমের কাছে মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘আমি একেবারেই মানতে পারছি না যে সিনিয়র  প্লেয়ারদের সঙ্গে ওনার (হাথুরুসিংহে) সম্পর্ক ভালো ছিল না। এটা ঠিক না। সম্পর্ক সবসময় ভালো ছিল। কারণ আমরা ফ্যামিলির মতো ছিলাম।’ 
শুধু তাই নয়, বাতাসে ভেসে বেড়ানো কথায় কাউকে কান না দিতেও অনুরোধ করেন মাহমুদুল্লাহ। জাতীয় দলের এ অলরাউন্ডার বলেন, ‘অনেক সময় অনেক কিছুই শোনা যায়, এগুলোতে কান না দিয়ে ক্রিকেটের জন্য যেটা ভালো সেটা করা উচিত। সবসময় উনি চেষ্টা করে এসেছেন আমাদের জন্য। আমরাও আমাদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছি।’ মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ব্যক্তিগতভাবে ভুলতে পারবেন না কোচ হাথুরুসিংহেকে। কারণ এ কোচের সময় বদলে গেছে তার ক্যারিয়ার। এ জন্য তিনি কোচকে বিশেষভাবে মনে রাখবেন।  তাকে অনেক মিসও করবেন বলে জানান। মাহমুদুল্লাহ  বলেন, ‘আমার উন্নতির পেছনে উনার বেশ অবদান ছিল। অবশ্যই ওনাকে মিস করবো।’ 
কোচ নিয়ে মাহমুদুল্লাহর এমন আবেগ থাকাটা স্বাভাবিক। ২০০৭ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অভিষেকের পর ২০১৫ বিশ্বকাপের আগ পর্যন্ত ১১০টি ওয়ানডে খেলেন মাহমুদুল্লাহ। কিন্তু  সেঞ্চুরি ছিল না একটিও। হাথুরুসিংহে বাংলাদেশের কোচ হিসেবে যোগ দেয়ার পরই তার ভাগ্য বদলাতে শুরু করে। অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে মাহমুদুল্লহর ব্যাট থেকে আসে দুটি সেঞ্চুরি। বিশ্বকাপে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে তার ব্যাট থেকেই প্রথম সেঞ্চুরি আসে। তবে সর্বশেষ শ্রীলঙ্কা সফরে সেই মাহমুদুল্লাহকেই শততম টেস্টে দলের বাইরে রাখেন কোচ। এমনকি তার চাওয়াতেই দেশে ফেরত পাঠানো হচ্ছিল ওয়ানডে দলে না রেখে। ২০১৪ সালে দায়িত্ব নেয়ার শুরুতেই কোচের দ্বন্দ্বটা স্পষ্ট ছিল সাকিব আল হাসানের সঙ্গে। এরপর মাহমুদুল্লাহ, মাশরাফি, মুমিনুল সর্বশেষ তামিম ইকবালের সঙ্গেও দ্বন্দ্বের কথা শোনা যায়। যদিও কোনো ক্রিকেটারই আজ পর্যন্ত তাদের সঙ্গে কোচের দূরত্বের কথা সরাসরি স্বীকার করেননি।  
এছাড়াও শুভেচ্ছাদূতের বক্তব্যে মাহমুদুল্লাহ বলেন, ‘এদেশের ভবিষ্যৎ গড়তে ও সমাজকে প্রভাবিত করার ক্ষমতা যে যুব সমাজের রয়েছে, এ বিষয়গুলো তরুণদের বোঝাতে আমাদের অনেক কাজ করতে হবে। এজন্য ইউএসএআইডি’র এই অংশীদারিত্ব করা এবং শুভেচ্ছাদূত হওয়াতে আমি গর্বিত বোধ করছি। আমরা শুধু ক্রিকেট খেলায় নয় অনেক কিছুতেই এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের মেয়েরা এএফসি ফুটবলে খুব ভালো করছে।

মন্তব্য
  1. image
    Aaron Miller

    good
    2 min

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন