A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: mysqli::mysqli(): (HY000/1045): Access denied for user 'impressnews24_admin'@'localhost' (using password: YES)

Filename: front/details2.php

Line Number: 57

Backtrace:

File: /home/thenews71/public_html/application/views/front/details2.php
Line: 57
Function: mysqli

File: /home/thenews71/public_html/application/controllers/News.php
Line: 46
Function: view

File: /home/thenews71/public_html/index.php
Line: 315
Function: require_once

দেবের বিরুদ্ধে মানব বন্ধন করবে ‘চল পালাই’ টিম

by  ডেস্ক রিপোর্টার | | Monday 27th November 2017 |08:28 PM

দেবের বিরুদ্ধে মানব বন্ধন করবে ‘চল পালাই’ টিম

বাংলাদেশে অনেক দিন ধরেই নানা বিষয়ে মানববন্ধন চলছে যৌথ প্রযোজনা সিনেমা নিয়ে। বিভিন্ন ইস্যুতে দুইদেশের সিনে জগতে চলছে একে ওপরে কেও কাউকে ছাড় দিতে রাজি না। দেবাশীষ বিশ্বাস পরিচালিত  ‘চল পালাই’ ছবিটি আগামী ৮ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে সারাদেশে। একই দিনে কলকাতার চলচ্চিত্র ‘ককপিট’ বাংলাদেশে মুক্তির ঘোষণা দিয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। ছবির প্রচারণায়  আগামী ৫ ডিসেম্বর দেবের ঢাকায় আসার কথা রয়েছে।

চল পালাই ছবির পরিচালক ও কলাকুশলীরা মনে  করেছেন, ‘ককপিট’ ছবিটি একই দিনে মুক্তি পেলে তাঁদের ‘চল পালাই’ ছবিটি বাধাগ্রস্ত হবে।এ কারণে দেব ঢাকায় এলেই নাকি  মানববন্ধন করবে ‘চল পালাই’ টিম।

‘চল পালাই’ ছবির পরিচালক দেবাশীষ বিশ্বাস জানান, ‘বাংলাদেশের মানুষ সবসময় কলকাতার চলচ্চিত্র বয়কট করে যাচ্ছে। তাদের কোনো ছবি  ব্যবসা করতে পারেনি। আমাদের দেশের ছবি দর্শক হলে গিয়ে দেখতে পছন্দ করেন। তাই আমাদের দেশের চলচ্চিত্র  বাঁচাতে  দেব ঢাকায় এলে তাঁর বিরুদ্ধে মানববন্ধন করব।’

ছবিতে নায়ক চরিত্রে অভিনয় করছেন শাহরিয়াজ। তিনি বলেন, ‘কলকাতার ছবি, তাদের ভাষা, তাদের  সংস্কৃতি  একেবারে আলাদা। সব চেয়ে বড় কথা, আমাদের সংস্কৃতি  অনেক সমৃদ্ধ। আমি মনে করি, আমাদের  সংস্কৃতি নষ্ট  করার জন্য এবং  কলকাতার ছবির বাজার তৈরি করার জন্য আমাদের দেশের কিছু মানুষ কাজ করছে। কিন্তু  তাঁরা সফল হতে পারবে না। কারণ আমাদের দেশের মানুষ আমাদের ছবিই দেখতে চায়। এটা যুগ যুগ  ধরে প্রমাণিত। দেশের মানুষকে সাথে নিয়ে আন্দোলন করব। আগে দেশের চলচ্চিত্র, তারপর অন্য কিছু। ’

জাজ মাল্টিমিডিয়ার সিইও আলিমুল্লাহ খোকন এ বিষয় বলেন, “এক সময় আমাদের দেশে চার, পাঁচটি  ছবি একইদিনে মুক্তি পেত। তাহলে কলকাতার একটি ছবি মুক্তি পেলে সমস্যা কী! এ ছাড়া বাংলাদেশে এখন ৩০০ সিনেমা হল আছে। সব সিনেমা হলে তো আর ‘চল পালাই’ ছবিটি  মুক্তি পাবে না। খুব বেশি সিনেমা হলে  ‘ককপিট’ ছবিটি মুক্তি দেব না আমরা। কিছু  সিনেমা হলে ছবিটি মুক্তি পাবে।”

এদিকে সাফটা চুক্তিতে বাংলাদেশ  ও কলকাতার মধ্যে চলচ্চিত্র বিনিময় হচ্ছে। ২০১৬ সালে  সাফটা কার্যকর হয়। চুক্তি অনুযায়ী এবার সিদ্ধান্ত হয়েছে কলকাতার ছবি ‘ককপিট’ বাংলাদেশে মুক্তি পাবে। অন্যদিকে, বাংলাদেশের ‘ধেৎতেরিকি’ ছবিটি মুক্তি পাবে কলকাতায়।

মন্তব্য
  1. image
    Aaron Miller

    good
    2 min

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন